আমাজন এফিলিয়েটে আসার পূর্ব প্রস্তুতি গাইড

আমাজন এফিলিয়েটে আসার পূর্ব প্রস্তুতি।

এই পোষ্ট টি করার উদ্দেশ্য হলো, আমাজন এফিলিয়েটে এসে অনেকে, কিভাবে কি শুরু করবে বুঝে উঠতে পারেনা।ধৈয্য হারায় ফেলে । আপনি যদি চিন্তা করেন আমাজন এফিলিয়েট শুরু করবেন । তাহলে আগের পোষ্টটি পড়ে ফেলুন ( A-Z আমাজন এফিলিয়েট মার্কেটিং )। ধরলাম আগের পোষ্টটি পড়েছেন,আপনি আমাজন, এফিলিয়েট মার্কেটিং শুরু করতে চান।।আপনার , মধ্যে যে ২ টা গুন অবশ্যই থাকতে হবে তা হলো :

  1. প্রচন্ড ধৈয্য।
  2. সবসময় নতুন কিছু শেখার আগ্রহ ।

মনে রাখবেন, সাকসেস আপনি কখনই খুব অল্পসময় পাবেন না । ধৈয্য ধরার কথা সবাই বলে, তবে আমি একটু ভিন্নভাবে শেয়ার করবো । আপনাকে অবশ্যই ইনকামের জন্য মিনিমাম, ২ বছর টাইম নিয়ে প্রস্তুতি নিতে হবে ।

কেও যদি সাজেশন দেয়, দ্রুত ই ইনকাম করতে পারবেন তবে সেটা ভুল। কারন আমি ধরে নিচ্ছি আমার মত আপনার ইনভেষ্ট নেই।থাকলেও অনেক কম । আপনার এস.ই.ও এক্সপার্ট টিম নেই । থাকলেও তারা কোয়ালিটি সার্ভিস দিবে কিনা জানেন না । তাই শেখার জন্য অবশ্যই টাইম দিতে হবে ।

তবে, একটা কথা বলে রাখি । আজ, হয়ত একটা আমাজন মার্কেটারের, ইনকামের স্কিনশর্ট দেখে, মটিভেট হয়ে আমাজনে এফিলিয়েট শেখা শুরু করলেন.কাল একজন, গ্রাফিক্স ডিজাইনারের ইনকামের স্কিনশর্ট দেখে গ্রাফিক্স শেখা শুরু করলেন । এমন আবেগ থাকলে, আপনি অনলাইনে কোথাও সাকসেস হতে পারবেন না । কারন, আপনি যখন ১৪+ ইয়ার এত গাইডলাইনের মধ্য, পড়াশুনা করে,ভাল জব পাচ্ছেন না, আপনার ইনকাম নিয়ে সন্তুষ্ট না । তাইলে কিভাবে, ভাবলে ২ দিন শিখে ই অনলাইনের যেকোন সেক্টরে সাকসেসফুল হবেন, যেখানে পাচ্ছেনা কোন সুনিদিষ্ট গাইডলাইন ।

কিভাবে আমাজন এফিলিয়েট শেখা শুরু করবেন

যাই হোক, আপনি যদি স্টুডেন্ট, বা চাকরিজীবি হয়ে থাকেন তো আপনার, মাথায় ইষ্টানলি ইনকামের পেরা নেই । যদি, বেকার হয়ে থাকেন, তবে অফলাইনে কিছু করার পাশাপাশি, মার্কেটিং শেখা শুরু করে দেন । আজ থেকে শুরু করে ২-৩ মাস বা ৫-৬ মাসের মধ্য ইনকাম করতে পারবেন । এমন টা শিওর থেকে এ সেক্টরে আসবেন না প্লিজ।তবে, হ্যা আপনি শেখার পিছনে অনেক সময় ব্যায় করতে পারলে।অবশ্যই ৫-৬ মাসের মধ্যে সাকসেস হতে পারবেন । তবে অবশ্যই আপনাকে শুধু এ সেক্টরে ই ফোকাস করতে হবে । মাল্টিপল বিষয় নিয়ে কখনও সামনে আগাতে পারবেন না । আর আমি আপনাদের, একটু ভিন্নভাবে গাইডলাইন দিব ।

এত টাইম নিয়ে শেখার পর সুবিধা কি ?

আপনি, শুধু শেখার পেছনে সময় ব্যায় করুন । দেখবেন, একসময় আপনার প্রতিমাসে কাজ করেন বা না করেন ইনকাম পাবেন । তবে একদম কাজ করা লাগবেনা সেটা নয়।আপনি নিজেই বুঝতে পারবেন কতটুকু কাজ করা লাগবে।

আপনি, কিভাবে শুরু করবেন আমাজন এফিলিয়েট?

যারা আমাজনে মার্কেটিং করতে চায় ২ টা উপায় আছে।

  1. আমাজন ইনফ্লুয়েন্সার।
  2. আমাজন এফিলিয়েট।

কিভাবে ইনফ্লুয়েন্সার করবেন?

আগের পোষ্টে বলেছি আমাজন ইনফ্লুয়েজিং করার জন্য, শোস্যাল মিডিয়ার, ইউজার দের টার্গেট করতে হয় । যদিও, ফেসবুক পেজ, টুইটার, বা অন্যান্য শোস্যাল মিডিয়া মাধ্যমে, সেল আনা যায়, তবে, সেটা লংটাইমের জন্য হয়না । যার ফলে, ইউটিউব ভিডিও মার্কেটিং এ দিক থেকে সবথেকে নির্ভরযগ্য ও লংটাইম ওয়েব সাইটের মত সেল পাওয়া যায়।

পরবর্তীতে টুইটার, ফেসবুক, পিন্টারেষ্ট মার্কেটিং সম্পর্কে বিস্তারিত ধারনা দিব

ইউটিউিব, মার্কেটিং করে সেল করতে হলে,আপনার, ভিডিও এডিট করতে জানতে হবে,জানতে হবে কেমন টাইপের ভিডিও বানালে ভিজিটার ডেসক্রিপশনের লিংকে যেয়ে পন্য কিনবে । আবার, বেসিক ভিডিও এস.ই.ও সম্পর্কে জানতে হবে । কারন যারা ইউটিউবে, নিদিষ্ট কোন প্রডাক্টের রিভিউয়ের জন্য ইউটিউবে সার্চ করবে, আপনার ভিডিও খুজে না পেলে সেল আসবে কিভাবে?

কিভাবে প্রডাক্ট খুজে, কোথা থেকে, স্ক্রীপ্ট, ভয়েজ, ইমেজ, ফুটেজ ইত্যাদি নিয়ে কিভাবে ভিডিও এডিট করে।কিভাবে ট্যাগ রির্চাস করে, ইউটিউবে আপলোড করলে, আপনার ভিডিও টি ভিজিটর রা খুজে পাবে । সেসব বিষয় প্রাক্টিক্যালি আপনাদের দেখাব ও টিপস শেয়ার করবো ।

তবে এখনই ই নয় কারন এখন আপনার পড়াশুনা করার সময়, বোঝার সময়।।তাই এখন থেকে আপনাদের আমাজন এফিলিয়েট সম্পকে বিস্তারিত শেয়ার করবো । তাছাড়া, আপনি ভিডিও মার্কেটিং করতে পারলে আমাজন এফিলিয়েটে ও আপনি সবার থেকে একধাপ এগিয়ে থাকবেন ।

কিভাবে এফিলিয়েট করবেন?

আগের পোষ্টে বলেছি, এফিলিয়েট করার জন্য ওয়েবসাইট লাগবে । এবং প্রডাক্ট গুলা যেন কাস্টমার রা কিনে, তার জন্য গুনাগুন বর্ননা করতে হবে । তার জন্য আপনার ইংরেজিতে, প্রডাক্টের গুনাগুন রিভিউ লেখা শিখতে হবে।কারণ, আমি ধরে নিয়েছি আপনার ইনভেষ্ট নাই।।আর কাওকে দিয়ে লিখিয়ে নিতে গেলে, তাকে অনেক টাকা বা ডলার প্রদান করতে হবে।।সাথে আপনাকে, গুগলে এস.ই.ও সম্পর্কে বিস্তারিত ধারনা থাকতে হবে।পরবর্তী পোষ্টগুলাতে, এসব বিষয়ে ধারাবাহিক ভাবে শেয়ার করবো। কিভাবে, নিজে রাইটিং শিখবেন? কিভাবে এস.ই.ও করবেন ইত্যাদি ।

তবে ছোট্ট একটি অনুরোধ পোষ্টটি আপনার সেই বন্ধুটির সাথে শেয়ার করবেন যে, অনলাইনে ক্যারিয়ার গড়তে চায়।।

Leave a Comment