কন্টেন্ট রাইটিং এর এডভ্যান্স টিপস

আমি প্রায় ৩ বছর ধরে একাধারে রাইটিং এর সাথে যুক্ত আছি, তো আমার এক্সপ্রিয়েন্স থেকে আজ কন্টেন্ট রাইটিং এর এডভ্যান্স টিপস শেয়ার করবো। যেভাবে রাইটিং করলে আপনার কাষ্টমার বা ভিজিটরদের কনভার্স অনেক ভাল পাবেন।

প্রথমে বলে রাখি, আপনি অবশ্যই নেটিভ রাইটার নয়। কিন্তু অপনি যদি ভিজিটার এর সমস্যার সমাধান দিতে পারেন, তবে অবশ্যই আপনার লেখা অনেক ভেলুএবল হবে।

রিভিউ কন্টেন্ট রাইটিং এর এডভ্যান্স টিপস:

প্রথমে মনে রাখতে হবে আপনার লেখা পড়ে ভিজিটার প্রডাক্ট কেনার সিধান্ত নিবে তাই প্রডাক্ট গুলা সম্পর্কে যথেষ্ট স্টাডি করতে হবে।

তারপর দেখবেন প্রতিটা প্রডাক্ট এ বিশেষ কোন দিক থেকে অন্য প্রডাক্ট থেকে সেরা। যেমন: কোনটি প্রাইস কম, কোনটি কোয়ালি সেরা প্রাইস বেশি, কোনটির পাওয়ার বেশি, কোন প্রডাক্ট লংটাইম প্রটেক্টশন ওয়ারেন্টি দিচ্ছে। এমন টা।

এই স্পেসিফিক বিষয় গুলা, হাইলাইট করতে হবে। এবং এই স্পেসিফিক বিষয় গুলার ওপর জোর দিয়ে রিভিউ & বাইং গাইড লিখতে হবে। চেষ্টা করতে হবে যত সহজে ও পরিষ্কার ভাবে বিষয় গুলা তুলে ধরা যাই। একটু নেটিভ দের মত টোন দিতে পারলে আরো বেশি ভাল হবে।

এবার আসি ইনট্রোতে:

সবসময় ইন্ট্রো শেষে লিখবেন। কারন পুরো রিভিউ লেখার পরে, পোষ্ট টি সম্পর্কে আপনার ওভারওল একটা ধারনা চলে আসবে। যার ফলে ইন্ট্রোতে সামগ্রিক বিষয় গুলা খুব সহজে তুলে ধরতে পারবেন।

ইন্ট্রোতে প্রডাক্ট নিয়ে নিতি কথা বা উপকারিতা লেখার প্রয়জন নেই। কারন রিডার ভাল প্রডাক্ট সম্পর্কে জানতে এসেছে, প্রডাক্ট এর উপকারিতা নয়। আপনি যে প্রডাক্ট নিয়ে অনে রিসার্চ করেছেন, তা সংক্ষেপে সুন্দরভাবে তুলে ধরবেন।

সবগুলা প্রডাক্ট সম্পর্কে একটা ওভারওল ধারনা শুরুতেই বুলেট পয়েন্ট করে দিয়ে দিবেন। এটি, ব্যাস্ত রিডারকে দ্রুত কনভার্সনে যেতে সাহায্য করবে। প্রডাক্ট রিভিউ গুলা পড়তে ইন্টারেষ্টেড করবে। এবং, গুগল ফিসার্ড স্নাইপেডে স্থান পেতে সাহায্য করবে।

ইনফো কনটেন্ট লেখার অ্যাডভান্স টিপস:

অন্য একদিন শেয়ার করবো সে পর্যন্ত Niche School এর সাথে থাকুন. অনেক ধন্যবাদ Niche School এর সাথে থাকার জন্য

Leave a Comment